PeopleNTech Business Hosting

অনুষ্ঠান

ওয়াশিংটন ডিসিতে প্রিয়বাংলার মনোমুগ্ধকর আয়োজন

জ্যাকসন হাইটসে সবজির সেল মানেই পচা সবজি বিক্রি। জ্যাকসন হাইটসের একাধিক গ্রোসারি মালিক ‘সেল’ ঘোষণা করে নিম্নমানের সবজি বিক্রি করছেন। বিশেষ করে ভারতীয় মালিকানাধীন এক সুপার মার্কেট কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে সেল দিয়ে নিম্নমানের, এমনকি পচা সবজি বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে। দাম কম দেখে একশ্রেণির ক্রেতা এসব সবজি কিনে নিয়ে যান। রান্নার পর এসব সবজির স্বাদ-গন্ধ কিছুই পাওয়া যায় না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ক্রেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন পণ্যের ‘সেল’ ঘোষণা করেন। সাধারণত যে দাম রাখা হয়, তার চেয়ে কম দামে এসব পণ্য বিক্রি করা হয়। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট পণ্যের মানে কোনো নড়চড় হয় না। কিন্তু জ্যাকসন হাইটসের ভারতীয় মালিকানাধীন এক সুপার মার্কেটের ক্ষেত্রে বিষয়টি একেবারেই আলাদা। তাদের কাছে ‘সেল’ মানেই নিম্ন মানের পণ্য ক্রেতাদের গছিয়ে দেওয়া। এমনকি নিত্যপণ্য সবজিও এর বাইরে নয়। সেল দিয়ে তারা পচা সবজি গছিয়ে দিচ্ছে ক্রেতাদের, যা খাওয়ার অযোগ্য। ২২ ডিসেম্বর জ্যাকসন হাইটসের ৩৭ অ্যাভিনিউ ও ৭৩ স্ট্রিটে অবস্থিত এক সুপার মার্কেটে গেলে দেখা যায়, ‘সেল’ লেখা বোর্ড টানিয়ে নিম্নমানের সবজি দোকানের বাইরে সাজিয়ে রাখা হয়েছে। সেখানে হলুদ কাগজে দাম লিখে বেন্ডি, শিম, মুলার শাকসহ বিভিন্ন ধরনের শাক বিক্রি করতে দেখা গেছে, যার সবই নিম্নমানের। এর মধ্যে দু-একটি সবজি একেবারেই পচা। শাক ও সবজির ওপরের অংশে কালো দাগ পড়ে গেছে। বাংলাদেশি মালিকানাধীন আরেক গ্রোসারিতেও দেখা গেল একই চিত্র। সেখানে সেল দিয়ে নিম্নমানের শসা বিক্রি করতে দেখা গেছে। নিয়ম অনুযায়ী এসব নিম্নমানের সবজি বর্জ্য হিসেবে ফেলে দেওয়ার কথা থাকলেও দোকান মালিকেরা তা করছেন না। কথা হয় সবজি কিনতে আসা সাইদা আক্তারের সঙ্গে। তিনি বলেন, এটি একটি বিস্ময়কর ব্যাপার। প্রকাশ্যে বাইরে সাজিয়ে এসব নিম্নমানের সবজি বিক্রি হচ্ছে। অথচ প্রশাসন কোনো কিছু করছে না।