PeopleNTech Business Hosting
৪ হাজার ভেন্ডিং লাইসেন্স ইস্যু হচ্ছে : হাজারো বাংলাদেশির স্বপ্নপূরণের সুযোগ

৪ হাজার ভেন্ডিং লাইসেন্স ইস্যু হচ্ছে : হাজারো বাংলাদেশির স্বপ্নপূরণের সুযোগ


এনআরবি কানেক্ট নিউজ: নিউইয়র্ক সিটি ৪ হাজার নতুন স্ট্রিট ভেন্ডর লাইসেন্স ইস্যু করবে। গত এক দশক অপেক্ষার পর স্ট্রিট ভেন্ডিং ব্যবসার সাথে জড়িত কিংবা আগ্রহীদের আশা আকাক্সক্ষা পূরণ হতে যাচ্ছে। নিউইয়র্কে কয়েক হাজার বাংলাদেশি এ ব্যবসার সাথে জড়িত। গতকাল বৃহস্পতিবার নিউইয়র্ক সিটি নতুন ভেন্ডর লাইসেন্স প্রদানের লক্ষে আইন পাশ করেছে।

নতুন এই আইন পাশের ফলে কয়েক হাজার বাংলাদেশি ভেন্ডর ব্যবসার সাথে সরাসরি যুক্ত হবার সুযোগ পাবেন। উন্মোচিত হবে ইমিগ্র্যান্ট কমিউনিটির লোকজনদের ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসারিত বাজার।

ম্যানহাটানসহ, কুইন্স, ব্রঙ্কস ও ব্রুকলিনের জনবহুল এলাকাগুলোতে প্রবাসী বাংলাদেশিরা একচেটিয়া স্ট্রিট ভেন্ডিং ব্যবসা করে আসছেন কয়েক বছর ধরে। তবে অনেকেরই নিজস্ব লাইসেন্স নেই। অন্যের কাছ থেকে লাইসেন্স লিজ নিয়ে এ ব্যবসা করেন। আর এ জন্য লাইসেন্সধারীকে বছরে দিতে হয় ২০ থেকে ৩০ হাজার ডলার। যেমনটি ‘গনি মিয়ার নিজের জমি নেই অন্যের জমি চাষ করার মতো’। বিনা পুঁজি ও পরিশ্রমে লাইসেন্সের মালিক প্রতি বছর হাতিয়ে নেন এ অর্থ। এরপরও অন্যের লাইসেন্স ভাড়া নিয়ে ব্যবসায় সাফল্য অর্জন করছেন অনেকেই।

ম্যানহাটানের শতকরা ৬০ ভাগ স্ট্রিট ভেন্ডিং এর সাথেই বাংলাদেশিরা জড়িত। সেন্ট্রাল পার্কের প্রতিটি কার্টই বাংলাদেশিদের ব্যবস্থাপনায়। তাদের অনেকেই নিজের লাইসেন্সের জন্য আবেদন করে বছরের পর বছর অপেক্ষা করছেন। সিটির এ সিদ্ধান্তের ফলে তারা আশার আলো দেখছেন।

আগামী বছর জুলাই থেকে এই নতুন লাইসেন্স ইস্যু শুরু হবে। যারা ইতোমধ্যেই আবেদন করেছেন তারা পাবেন অগ্রাধিকার ভিত্তিতে। এ আইনের আলোকে নতুন লাইসেন্স হোল্ডারকে নিজেই ভেন্ডিং কার্ট অপারেট করতে হবে। অন্য কাউকে লিজ দেয়া যাবে না। কর্তৃপক্ষ আগামীতে চেক করে দেখবে পুরাতন লাইসেন্সধারীরা নিজেদের কার্ট নিজেরাই অপারেট করছেন কিনা। লিজ বা ভাড়া দেয়ার প্রমাণ পেলে লাইসেন্স বাতিল করবে। এ আইন বাস্তবায়নে সিটি একটি ‘এনফোর্সিং ইউনিট’ গঠন করবে। গঠিত হবে একটি এডভাইজরি বোর্ডও।

গতকাল বৃহস্পতিবার সিটি কাউন্সিলে ৩৪-১৩ ভোটে আইনটি পাশ হয়। মেয়র ব্লাজিও এতে স্বাক্ষর করবেন বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেছেন, ভেন্ডিং ব্যবসা একটি পথ যাতে জনগণ তাদের নিজের ব্যবসার দরজা খুলতে পারে। নিউইয়র্কের ইমিগ্র্যান্টদের জন্য আইনটি মাইলস্টোন হিসেবে চিহ্নিত হবে। আইনটির প্রধান স্পন্সর ছিলেন ম্যানহাটান থেকে নির্বাচিত কাউন্সিলর মার্গারেট চিন। তিনি বলেন, আইনটি খেটে খাওয়া মানুষের আশা ও সুযোগ সৃষ্টি করবে।

বর্তমানে সিটিতে বৈধ স্ট্রিট লাইসেন্সের সংখ্যা ৩ হাজার। নতুন ইস্যু করা হবে ৪ হাজার।

বাংলাদেশি আহমেদ মোহসিন এক প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, আমি ভেন্ডিং ব্যবসার সাথে জড়িত ১০ বছর। অন্যের লাইসেন্স ভাড়া নিয়ে ব্যবসা করছি (যদিও উভয়ের জন্যই অবৈধ)। একটি স্বপ্ন নিজের লাইসেন্সে ব্যবসা করবো। এ জন্য সিটিতে আবেদন করে বছরের পর বছর অপেক্ষা করছি। আইনটি পাশের মধ্য দিয়ে আমার আকাক্সক্ষা হয়তো পূরণ হবে। তিনি বলেন, যেমনটি আগে ছিল ড্রাইভারদের কাছে ইয়োলো ক্যাবের মেডেলিয়নের মালিক হওয়া।

২০১৮ সালের এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, সিটিতে গড়ে প্রতি বছর ৪০০ মিলিয়ন ডলারের স্ট্রিট ভেন্ডিং ব্যবসা হয়ে থাকে। ১৭ হাজারেরও বেশি মানুষ এতে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে কাজ করেন। যাদের সিংহভাগই ইমিগ্র্যান্ট।


Ads